ইমাম মারি আল-কারমি (র)

আল্লামা মারঈ বিন ইউসুফ আল-কারমি আল-আযহারি ছিলেন ১৬০০ সালের দিকের একজন প্রখ্যাত হাম্বলি আলেম। তিনি ফিলিস্তিনে তুলকার্ম শহরে জন্মগ্রহণ করেন, এরপর বায়তুল মাকদিসে ইলমের জন্যে সফর করেন, তারপরে মিশরে। এরপর আযহারের মসজিদ এবং তুলুনি মসজিদে শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। একাধারে তিনি ছিলেন ফকিহ, উসুলি, মুফাসসির, ব্যকরণবিদ, মুহাদ্দিস, ইতিহাসবিদ ইত্যাদি। তাঁর বহুপারদর্শীতার ছাপ লেখার মধ্যেও ছিল। ফিকহ, হাদিস, উসুল, তাসাউফ, আকিদা, তাফসির, ইতিহাস থেকে শুরু করে এমনকি তৎকালীন চিকিৎসাশাস্ত্র (তিব্ব) এর উপরও কলম চালিয়েছেন। হাম্বলি মাযহাবের অন্যতম সেরা ফিকহি মতন “দলিলুত-তলিব” তাঁর লেখা। কিতাবটির বিন্যাস এমন গোছালো ও সুন্দর যে, এর উপর পরবর্তী হাম্বলি আলেমরা বহু শুরুহ ও হাওয়াশি (ব্যাখ্যা+ টীকা) লিখেছেন, এবং আজ অবধি শামসহ বিভিন্ন অঞ্চলে এটি পাঠ্যকিতাব হিসেবে ব্যবহৃত হয়। শামের প্রয়াত হাম্বলি ফকিহ ইবনে বাদরান বলেছেন, “তিনি মিশরে হাম্বলি মাযহাবের আকাবির আলেমদের একজন”। ইবনে হুমাইদ তাঁর ব্যাপারে বলেছেনঃ

العالم العلامة البحر الفهامة المدقق المحقق المفسر المحدث الفقيه الأصولي النحوي أحد أكابر علماء الحنابلة بمصر

তিনি “قلائد العقيان : في فضائل آل عثمان” নামে একটা বই লিখেছেন। বইটাতে উসমানি বিভিন্ন সুলতান এবং সার্বিকভাবে উসমানিদের প্রশংসা ও ডিফেন্ড করেছেন। উসমানিদের প্রভাব-বিজয়, আলেমদের প্রতি তাদের সম্মান ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করেছেন, তাদের আগে এবং পরের অবস্থার তুলনা করেছেন।

ইমাম মারি আল-কারমি রচিত قلائد العقيان : في فضائل آل عثمان

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *