দলিলুত তলিব

লেখকঃ ইমাম মারই’ বিন ইউসুফ আল-কারমি আল-আযহারী আল-হাম্বলি (মৃত্যুঃ ১০৩৩ হিজরি)

কিতাবটির বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এর বিন্যাস গোছালো। ইবারত সহজ এবং পরিষ্কার, বুঝতে বেশি বেগ পেতে হয় না। সামান্য কিছু মাসায়েল ছাড়া মাযহাবের মুতামাদ অনুসারে রচিত। বিভিন্ন বা’বে প্রকারভেদ, শর্ত,আরকান ইত্যাদি অনেকবার সহজভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, ফলে ছাত্রের জন্যে বোঝা সহজ হয়। হাম্বলি আলেমরাও এই কিতাবের উপর অনেক কাজ করেছেন, শারহ, হাশিয়া প্রভৃতি লিখেছেন। শাম, মিশর, কাসিম ইত্যাদি অঞ্চলে পাঠদানের জন্যে এই কিতাবকে সমপর্যায়ের অন্যান্য কিতাব থেকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। কিছু আলেম উল্লেখ করেছেন, কিতাবটি মাযহাবের মুতামাদ নির্ধারণের অন্যতম কিতাব “আল-মুনতাহা”র মুখতাসার।

ব্যাখ্যাঃ

শারহঃ

১। নাইল আল–মা’রিব বিশারহি দলিলুত তলিব, লেখকঃ আব্দুল কাদির ইবনে উমর আল-তাগলিবি আল-শায়বানি (মৃত্যু ১১৩৫ হিজরি)। শাইখ মুসা ফারবার বলেছেন, মাযহাবের শেষ রায় জানার জন্যে শামে এই কিতাবকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। ব্যাখ্যাটি মূল মতনের অর্থ সহজভাবে ব্যাখ্যা করার জন্যে বেশ উপভোগ্য কিতাব, কিছু কাইদা এবং দলিলেরও উল্লেখ রয়েছে। এর দুটো হাশিয়া আছেঃ

  • হাশিয়া ‘আলা নাইল আল-মা’রিব, লেখক- মুস্তাফা আল-দুমানি (মৃত্যুঃ ১২০০ হি)
  • হাশিয়া আলা নাইল আল-মা’রিব/তাইসির আল-মাতালিব, আব্দুল গণী ইয়াসিন আল-লাবদি (মৃত্যু ১৩১৯ হিজরি)। এই হাশিয়াটি বেশ উপকারী। মুহাম্মাদ আল-মুররি (মৃত্যুঃ ১৯৬৮) এই হাশিয়ার সাথে আরও কিছু জিনিস যোগ করেছেন, “তাকরিরাত ওয়া যিয়াদাত ‘আলা হাশিয়া আল-লাবাদি’ নামে প্রকাশিত হয়েছে।

২। মাসলাক আল–রাগিব শারহ দলিলুত তলিব, লেখকঃ সালিহ ইবনে হাসান আল-বুহুতি (মৃত্যুঃ ১১২১ হি)

৩। শারহ আল–দলিল, লেখকঃ মুহাম্মাদ ইবনে আহমদ আল-সাফফারিনি (মৃত্যু ১১৮৮ হি)

৪। শারহ দলিলুত তলিব, লেখক ইসমাইল ইবনে আব্দুল করিম আল-জাররাই (মৃত্যু ১২০২হি)

৫। মানার আস–সাবিল শারহ দলিলুত তলিব, লেখক ইব্রাহিম ইবনে মুহাম্মাদ আল-নাজদি, যিনি ইবনে দাওইইয়ান নামেও পরিচিত। এই কিতাবে মাসায়েল বেশি যুক্ত করা হয়নি, তবে অনেক দলিল উল্লেখ করা হয়েছে। কিছু ক্ষেত্রে ইবনে তাইমিয়ার মত উল্লেখ রয়েছে। শাইখ বকর আবু যাইদ বলেছেন, “প্রতীয়মান হয় যে, এটা (মাসায়েল) ইবনে কুদামাহর ‘আল-কাফি’র সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে।” এই কিতাবের একাধিক তাখরিজ লেখা হয়েছে।

৬। নাইলুল মাত্বা’লিব লি–শারহি দলিলুত তলিব, লেখকঃ ফকিহুল কুয়েত শাইখ মুহাম্মাদ বিন সুলাইমান আল-জাররাহ আল-হানবালি (মৃত্যুঃ ১৪১৭ হিজরি)

হাশিয়াঃ

১। ফাতহুল ওয়াহহাব আল-মা’রিব ‘আলা দলিলুত তলিব লি নাইলিল মা’রিব, লেখকঃ আহমদ ইবনে মুহাম্মাদ ইবনে আওদ আল-মারদাবি (মৃত্যু ১১০১ হিজরি)। কিতাবটি অনেক বিস্তারিত। শাইখ ইউসুফ বিন সাদিক এই কিতাবকে প্রাধান্য দিয়েছেন।

২। হাশিয়া ‘আলা দলিলুত তলিব, লেখকঃ মুস্তাফা আল-দুমানি (মৃত্যু ১২০০ হি)

৩। হাশিয়া ‘আলা দলিলুত তলিব, লেখকঃ সালিহ ইবনে উসমান আল-কাযি (মৃত্যু ১৩৫১ হি)

৪। হাশিয়া ‘আলা দলিলুত তলিব, লেখকঃ উসমান ইবনে সালিহ ইবনে উসমান আল-কাযি (মৃত্যু ১৩৬৬ হি)

৫। হাশিয়া ‘আলা দলিলুত তলিব, লেখকঃ ইবনে মানি; (মৃত্যু ১৩৮৫ হি)

৬। ফাইদুল জলিল ‘আলা মতন আল-দলিল, লেখকঃ শাইখ আহমদ বিন নাসির আল-কুআইমি  (প্রকাশিতব্য ২০২১)

এছাড়া এই কিতাবের উপর ভিত্তি করে একাধিক নাযম রচিত হয়েছে।

রেফারেন্সঃ

১। মাদারিজ তাফাক্কুহ আল-হানবালি, শাইখ আহমদ বিন নাসির আল-কু’আইমি (হাফিযাহুল্লাহ)

২।  Hanbali Scholars & Books (Summarized from Al-Madkhal Al-Mufassal of Bakr Abu Zayd)

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *