দলিল নেই?

“শাইখ আমির বাহজাত বলেছেন, [চার মাযহাবের] ফিকহের কিতাবে সকল মাসআলারই দলিল রয়েছে। কিছু মানুষ এটা শুনে মাথা খারাপ করে ফেলে, তাঁরা দলিল বলতে মনে করছেন ১০০% টাইপের কিছু। না, ব্যাপারটা এমন নয়। কিছু আলিম কিছু বিষয়ে ঠিক হতে পারে, কিছু বিষয়ে সঠিক না হতে পারে- এটা সর্বসম্মত। কিন্তু তাঁরা যা বলেছে, তাদের সবকিছুতে দলিল রয়েছে। হ্যাঁ, সেটা হানাফি আলিমদের কিতাবেও, তাদের সবচেয়ে বেশি আক্রমণ করা হয়েছে এই কারণে। অবশ্যই তাদের দলিল রয়েছে, তাঁরা দিনরাত আল্লাহ্‌র ইবাদাত করছে, আর কোনো দলিল ছাড়া দলিলে শরিয়তের নামে, আল্লাহ্‌ এবং রাসুলের নামে যাচ্ছেতাই বলে যাচ্ছে? তাই শাইখ আমির বাহজাত বলেছেন, আলিমদের কোনো দলিলই নেই বলা তাদের ফিসকে অপবাদ দেওয়ার মত। অর্থাৎ তাদের কবিরা গুনাহর অপবাদে দেওয়ার মত, অর্থাৎ “এই আলিমের কোনো দলিলই নেই” বলার অর্থ হচ্ছে “এই আলিম যিনা করেছে”, অথবা “এই আলিম মদ্যপান করেছে” (অথবা আরও খারাপ)। তাই “ইমাম মালিকের মত এটা, কিন্তু এর কোনো দলিল নেই”, “ইমাম আহমদের মত এটা, কিন্তু কোনো দলিল নেই” – এমন ধরণের কথা বিশাল অপবাদ। কিন্তু কিছু আলিম তো এই ধরণের শব্দ ব্যবহার করেছেন, সেটার মানে কি? তাঁর মানে কি উনি বলছেন উক্ত আলিম বিনা দলিলে কথা বলেছেন? না, সেটার মানে হচ্ছে, উনি উক্ত আলিমের দলিলের ব্যবহারের সাথে দ্বিমত করছেন। অর্থাৎ ব্যাপারটা এমন- “এই আলিমের দলিল আছে তবে তাঁর দলিল ব্যবহার করার পদ্ধতির সাথে আমি একমত নই। আমি মনে করি, এই দলিল সঠিকভাবে ব্যবহার করার পদ্ধতি হচ্ছে এটি।”

-শাইখ জাহেদ ফেত্তাহ।

মূল সোর্সঃ https://www.youtube.com/watch?v=Z4KMiAH2Q5o&list=PLLEwR_ZljHmnYnCWQI-tr3mvJWI6vntPE

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *