বিয়ের হুকুম

প্রশ্ন: বিয়ের হুকুম কি? এটা কি ফরয?

উত্তরঃ মানুষের ব্যক্তিগত অবস্থার উপর ভিত্তি করে বিয়ের হুকুম বদলাবে।

>> যার যৌন-আকাঙ্ক্ষা বিদ্যমান কিন্তু সে ভয় পায় না যে সে বিয়ে না করলে হারাম যৌনক্রিয়ায় লিপ্ত হবে, তাঁর জন্যে বিয়ে *সুন্নাহ*। এইক্ষেত্রে নফল ইবাদাতের চেয়ে বিয়ে উত্তম।

>> যার আকাঙ্ক্ষা নেই, তাঁর জন্যে বিয়ে কেবল **মুবাহ**, কারণ বিয়ের উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষের পবিত্রতা রক্ষা করা, সন্তান নেওয়া এবং বংশবিস্তার করা। এই ক্ষেত্রে নফল সালাত বিয়ের উপর প্রাধান্য পাবে কেননা এরুপ মানুষ তাদের সঙ্গীর সতীত্ব রক্ষায় [ভূমিকা পালন] করতে না পারার সম্ভাবনা আছে। এছাড়াও, তাঁরা কিছু দায়িত্ব এবং অধিকার আদায়ে অক্ষম হতে পারে এবং ফলস্বরূপ ইলম-অর্জন এবং ইবাদাত থেকে দূরে সরে যেতে পারে– এমন কিছুর বিনিময়ে যেটার উপকার নেই।

>> শপথের কারণে এবং বিয়ে না করলে ব্যভিচারে লিপ্ত হওয়ার ভয় করলে বিয়ে করা ওয়াজিব। এইক্ষেত্রে বিয়ে ফরয হজের উপরে স্থান পাবে।

সুত্রঃ শারহুল মুন্তাহা

উত্তরদাতাঃ শাইখ আবু ইব্রাহিম জন স্টারলিং

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *