মাযহাবের বাইরে যাওয়া

শাইখ করিম আল হিলমি আল-হাম্বলি বলেছেনঃ

“হাম্বলি মাযহাবে তাকলিদকারী ব্যক্তি মাযহাবের যেকোনো শক্তিশালী মত গ্রহণ করতে পারেন এবং তার জন্যে মাযহাবের মাশহুর [সুপরিচিত] মতে সীমাবদ্ধ থাকা অপরিহার্য নয়।

শাইখ জাহেদ ফেত্তাহ যোগ করেছেন,

এখন, যদি কেউ কোন মাযহাব অনুসরণ করে, তাহলে তার মাশহুর মতের বিপরীতে যাবার ক্ষেত্রে কোন “ভাল কারণ” থাকা উচিত, কারণ এটা আমাদের উদ্দেশ্য বহাল রাখতে এবং সঠিকভাবে কাজ/আমল করতে নিশ্চিত করে। [মাযহাবের অন্য মতে যাবার] কারণ হতে পারে যে তার শিক্ষক মাযহাবের দ্বিতীয় কোন মতকে প্রাধান্য দেয়, হতে পারে তার কাছে নির্ভরযোগ্য কোন সাম্প্রতিক আলিম সেই মতকে বেছে নিয়েছে, অথবা কিছু গবেষণার পর তার মধ্যে ব্যক্তিগতভাবে প্রত্যয় জন্মেছে, অথবা এটা আরও বাস্তবমুখি মত, অথবা তাকে কাঠিন্য থেকে বের করে আনে। এগুলো সব হচ্ছে কারও মাযহাবের বাইরে যাবার ক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য কারণ।

মাথায় রাখতে [হবে] যে [হাম্বলি] মাযহাব কোন মুকাল্লিদকে [সকল ক্ষেত্রে] একই মাযহাবে থাকাকে ফরয বলেনি, আর [সকল ক্ষেত্রেই] মাশহুরে থাকা তো আরও দূরের কথা। আর প্রবৃত্তি অনুসরণের ব্যাপারটির ক্ষেত্রে, মানুষকে শেখানো উচিত এমন কিছু অনুসরণের জন্য যেটা আল্লাহ্‌কে খুশি করার জন্যে সবচেয়ে নিকটতর। যদি তারা ইচ্ছেমতো বাছাই করা এবং এটা নিয়ে খেলা শুরু কর, তাহলে সেটা তার এবং আল্লাহ্‌র মধ্যে। কিন্তু আমরা এমন কিছু ফরয বলি না, যেটা আল্লাহ্‌ ফরয বলেননি/করেননি- যেমন, প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই একটি মাযহাবে নিবদ্ধ থাকা।”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *