সালাতের নিয়ত

প্রশ্ন : কিভাবে আমি সালাতের জন্য নিয়ত করবো? 

উত্তর : নিয়ত করা সালাতের একটি শর্ত, যা ব্যতীত সালাত অবৈধ। যেহেতু এর স্থান হলো অন্তর, সেহেতু কোনো অবস্থাতেই এটি রহিত হয়ে যায় না। 

নিয়ত হলো নির্দিষ্ট সালাতের জন্য সংকল্প করা, হোক তা ফরয বা নফল। 

যদি সালাত, ফরয সালাত হয় কিংবা শপথের সালাত হয়, তবে অবশ্যই নির্দিষ্ট সালাতের নিয়ত করতে হবে, যেমন : যোহর, আসর। 

আর যদি সালাত, নির্দিষ্ট নফল সালাত হয়, তবে অন্য সালাত থেকে আলাদা করার জন্য নিয়তে তা অবশ্যই নির্দিষ্ট করতে হবে, যেমন : তারাবি, বিতর কিংবা রাতিবা। 

সালাতের আবশ্যকতার [ফরযিয়্যাত] বিষয়টি উল্লেখ করা জরুরি না, যেহেতু যে সালাত আদায় করা হবে তাঁর মধ্যেই এটি অন্তর্ভুক্ত। [যেমন : এমন নিয়ত করতে হবে না যে, আমি যোহরের ফরয সালাত আদায় করছি। বরং এটুকু নিয়ত করাই যথেষ্ট যে, আমি যোহরের সালাত আদায় করছি] 

উত্তম হলো, তাকবিরে তাহরিমার সাথে নিয়ত করা। তবে এর সমান্য কিছু সময় পূর্বেও নিয়ত করা যাবে। নিয়ত ভঙ্গ না করে পুরো সালাতেই বজায় রাখতে হবে। 

সূত্র : শারহুল মুনতাহা

উত্তরদাতাঃ শাইখ আবু ইব্রাহিম জন স্টার্লিং

[উল্লেখ্য, নিয়ত অন্তরে থাকলেই যথেষ্ট। এই ব্যাপারে অনেকে ওয়াসওয়াসায় ভুগেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমাদের নিয়ত এমনিই সঠিক হয়েই থাকে। তাই এখানে মাসআলাগুলো জেনে রাখার পাশাপাশি ওয়াসওয়াসাকেও জায়গা না দেওয়ার ব্যাপার মাথায় রাখতে হবে। মাযহাবের আলেমরা বলেছেন, আস্তে নিয়ত উচ্চারণ করা মুস্তাহাব, কারণ এতে অন্তর আর মুখ মিলে যায়। (দলিলুত তলিব) তবে এটা কোনো শর্ত বা কিছু না, কারও জন্যে হয়ত আরও সহজ করে তুলতে পারে।- হাম্বলি ফিকহ টিম]

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *