হাম্বলী মাযহাবে মুসহাফ সম্পর্কিত বিধান

হাম্বলী মাযহাবে মুসহাফ সম্পর্কিত বিধান

◼️মুসহাফ সম্পর্কিত জায়িয কাজ:

~মুসহাফে সুগন্ধি দেয়া
~চুম্বন করা

◼️মুসহাফ সম্পর্কিত মাকরূহ কাজ:

~মুসহাফের দিকে পা প্রসারিত করা
~মুসহাফের দিকে পৃষ্ঠপ্রদর্শন করা
~এর উপর দিয়ে পা ফেলা
~স্বর্ণ কিংবা রৌপ্য দিয়ে শোভাবর্ধন করা।অন্য ইলমের কিতাবও এগুলো দিয়ে শোভাবর্ধন করা হারাম৷

◼️মুসহাফ সম্পর্কিত হারাম কাজ:

~অপবিত্র কোনোকিছু দিয়ে মুসহাফ স্পর্শ করা
~দারুল হারবে মুসহাফ নিয়ে ভ্রমণ করা
~বালিশ হিসেবে কুরআন কিংবা এমন কিতাব যেটায় কুরআন এর আয়াত আছে তা ব্যবহার করা। তবে চুরির আশংকা থাকলে জায়িয৷
~এমন স্থানে কুরআন এর আয়াত লিখা যেখানে কুরআন অসম্মানিত হতে পারে।
~টয়লেটে মুসহাফ নিয়ে প্রবেশ করা।

◼️হাদাস [অপবিত্র] অবস্থায় মুসহাফ স্পর্শ করা:

১.হারাম:
ওযু ব্যতীত সরাসরি মুসহাফ স্পর্শ করা হারাম

২.জায়িয:
~কোনো প্রতিবন্ধক/বাঁধাসহ মুসহাফ স্পর্শ করা
~ব্যাগে বহন করা
~কাঠি বা স্লীভ দিয়ে পাতা উলটানো
~কুরআন এর তাফসীর স্পর্শ করা

◼️ মুসহাফ ক্রয়বিক্রয় করা:

১.বিক্রয় করা:

  • মুসহাফ বিক্রয় করা হারাম কারণ কুরআনকে তাযিম (সম্মান) করা ওয়াজিব আর বিক্রয় করা এর বিপরীত।
  • ইমাম আহমাদ রাহিমাহুল্লাহ বলেন,”মুসহাফ বিক্রয় করার অনুমোদনে কোনো রুখসত সম্পর্কে আমরা জানি না।”

২.ক্রয় করা:
~মুসলিমের নিকট থেকে ক্রয় করা হারাম
~[কুরআন এর প্রতি]কোনো দুর্ব্যবহার প্রতিরোধের জন্য কাফিরদের নিকট থেকে মুসহাফ ক্রয় করা জায়িয।

সুত্রঃ Telegram – Hanbali Fiqh

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *