ইমাম আহমদের বিবাহজীবন

ইমাম আহমদের বিবাহজীবনঃ

বিয়ের বয়সঃ চল্লিশ বছরইমাম আহমদ বলেন, “আমি চল্লিশ বছর হবার আগে বিয়ে করিনি।” [মাররুযি]

প্রথম স্ত্রীঃ উম্মে সালিহইবনুল জাওযি [র] বলেছেন, তাঁর প্রথম স্ত্রী ছিল সালিহের মা, আব্বাসাহ বিনতে আল-ফাদল। ইমাম আহমদ বলেনঃ

,اقامت معي ام صالح ثلاثين سنة فما اختلفت انا وهي في كلمة

“আমি উম্মে সালিহের সাথে ত্রিশ বছর থাকি, আমাদের ভেতর কখনও বিরোধ হয়নি।” (ইবনুল জাওযির মতে, বিশ বছর)

দ্বিতীয় স্ত্রীঃ রাইহানাহ, উম্মে আবদুল্লাহ যুহাইর বর্ণনা করেন,”উম্মে সালিহ আব্বাসাহর মৃত্যুর পর আমার দাদা আরবের এক নারীকে বিয়ে করেন, যার নাম ছিল রাইহানাহ। তাঁর একজন সন্তান ছিল, আমার চাচা আবদুল্লাহ।”

মুহাম্মাদ ইবনে বাহর বর্ণনা করেন,”যখন আমরা ইমাম আহমদ এবং মুহাম্মাদ ইবনে রায়হানের বোনের বিয়ের জন্যে একত্রিত হই, তাঁর [রাইহানাহ] পিতা ইমাম আহমদকে বলেন, “আবু আবদুল্লাহ, সে [রাইহানাহ] … ” এরপর তিনি নিজের চোখের দিকে একটি আঙ্গুল দিয়ে ইশারা করেন, অর্থাৎ মানে হচ্ছে, তাঁর একটি চোখ ছিল।ইমাম আহমদ বলেন, “আমি সেটা জানি”।”

আল খাল্লাল বলেন,”আমি খাত্তাব ইবনে বিশরকে বলতে শুনেছি, ইমাম আহমদের একজন স্ত্রী তাঁর বাড়িতে আসার কিছুদিন বাদে ইমাম আহমদকে জিজ্ঞেস করেন, “আমি কি কিছু ভুল করছি?”ইমাম আহমদ বলেন, “না, তবে তোমার স্যান্ডেলগুলো রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সময়ে ছিল না।”এরপর তিনি স্যান্ডেলগুলো বিক্রি করেন দেন এবং একটি মাকতু কিনে পরিধান করতে থাকেন।

[খাল্লাল যোগ করেনঃ] এই নারী ছিলেন আবদুল্লাহর মা [অর্থাৎ ইমাম আহমদের দ্বিতীয় স্ত্রী]।ইবনুল জাওযি বলেছেন, তাঁর এই দুজন স্ত্রীর কথা শোনা যায়। আমরা তৃতীয় কারও কথা শুনিনি।

[মানাকিবু ইমাম আহমদ- ইবনুল জাওযি, Translated & Summarized as “The Life of Ibn Hanbal” by Cooperson: New York University Press]

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *