Month: April 2021

মৃত আত্মীয়কে কুর’আন তিলাওয়াতের সওয়াব দেওয়া

প্রশ্ন : আমি কি কুরআন তিলওয়াতের সাওয়াব আমার কোনো মৃত আত্মীয়কে উপহার দিতে পারব? উত্তর: মুসলিম কর্তৃক আদায়কৃত যে কোন ভালো আমলের সম্পূর্ণ  কিংবা অর্ধেক কোনো জীবিত বা মৃত মুসলিমের জন্য দান করলে, সেই সাওয়াব পৌঁছাবে। যদিও এই সাওয়াবের ধরণ অজানা। যেমন : নফল হজ, কুরআন তিলওয়াত, সালাত, সিয়াম এবং সদকা ইত্যাদি।  ইমাম আহমদ বলেন, …

মৃত আত্মীয়কে কুর’আন তিলাওয়াতের সওয়াব দেওয়া Read More »

হায়েযগ্রস্ত নারী কি মসজিদে অবস্থান করতে পারবে?

প্রশ্ন:- (মক্কায় অবস্থানকারী একজন হায়েযগ্রস্ত বোন) ইনশাআল্লাহ আমি হয়তো আর একদিন কিংবা কয়েক ঘন্টা পাবো। আমি কি মোবাইলে ক্বুরআন পড়ার জন্য এবং দোআ করার জন্য মসজিদে অবস্থান করতে পারবো? উত্তর:- না। হায়জগ্রস্থ মহিলার জন্য মসজিদে অবস্থান করা হারাম।  এমনকি সে মসজিদেও প্রবেশ করবে না যদি না সে কোনো প্রয়োজনের কারণে কেবল মসজিদের ভেতর দিয়ে অতিক্রম …

হায়েযগ্রস্ত নারী কি মসজিদে অবস্থান করতে পারবে? Read More »

হায়িয চলাকালিন মহিলাদের কুর’আন তিলাওয়াতের বিধান

প্রশ্ন: হায়িয চলাকালীন মহিলাদের ক্বুরআন তিলওয়াত করা কি বৈধ? উত্তর: না। তবে যদি সে হিফয ভুলে যাওয়ার আশংকা করে, তবে সরাসরি স্পর্শ করা ব্যতিরেকে একটি মুসহাফ নিতে পারে (কিংবা স্ত্রিনে কুরআন অ্যাপ ব্যবহার করবে), সে ঠোঁট নাড়ানো ব্যতীত শুধু মাত্র তাঁর চোখ দ্বারা মনে মনে পড়তে পারবে এবং পুনরাবৃত্তি করতে পারবে।  বোনদের এটা স্মরণে রাখা …

হায়িয চলাকালিন মহিলাদের কুর’আন তিলাওয়াতের বিধান Read More »

রমযান প্ল্যান

– শাইখ আবু ইব্রাহিম জন স্টারলিং রমযান মাস হচ্ছে আত্মার উন্নতি এবং সওয়াব বাড়ানোর মাস। এই মাসের ফায়দা নেওয়ার জন্য নিয়ত করা এবং একটা প্ল্যান বানানো সবচেয়ে উত্তম। আর আপনাদের সাহায্য করার জন্যে আমি শুরু করার মত একটা বেসিক প্ল্যান বানিয়েছি।এই প্ল্যানের লক্ষ্য হচ্ছে সকল সালাত সংশ্লিষ্ট সুন্নাতসহ সময়মত আদায় করা, বেশি দুয়া এবং যিকর করা …

রমযান প্ল্যান Read More »

তাকফিরে সতর্কতা

ইমাম মুহাম্মাদ বিন বদরউদ্দিন আল-বালবানি [র] বলেছেনঃ و من كفر من ليس بكافر معتقدا كفره. و من فسق من ليس بفاسق معتقدا فسقه فسق”যে ব্যক্তি এমন কাউকে নিশ্চিতভাবে কাফির বলবে যিনি আসলে কাফির নন, সে নিজে কুফর করেছে। একইভাবে, যে ব্যক্তি এমন কাউকে নিশ্চিতভাবে ফাসিক বলবে যিনি আসলে ফাসিক নন, সে নিজেই ফিসকে লিপ্ত হয়েছে।” …

তাকফিরে সতর্কতা Read More »

উটের মুত্র

“হাম্বলিদের মত হচ্ছে, যেসকল পশু আমাদের জন্যে খাওয়া জায়েজ, সেগুলোর মল এবং মুত্র পবিত্র। তবে, তাদের হতে পরিস্কার নসের মাধ্যমে [স্বয়ং ইমাম আহমদ হতেই] প্রতিষ্ঠিত যে, যরুরত ছাড়া এসকল পশুর মল কিংবা মুত্র খাওয়া হারাম, কেননা এগুলো নোংরা।অতএব, যরুরত ছাড়া উটের মুত্র খাওয়া হারাম।”-শাইখ আহমদ আল কুআইমি [র]। নোটঃ বুঝা জরুরি যে, কোনোকিছু নোংরা হওয়া …

উটের মুত্র Read More »

লাল নেকলেস…

“হজ শেষ হওয়ার পরপরই আমি একটা লাল নেকলেস খুঁজে পাই। উপরে একটি মুক্তা ছিল। হঠাৎ একজন বয়স্ক মানুষ এটা খুঁজতে শুরু করলেন। তিনি ঘোষণা দিলেন যিনি এটা খুঁজে পাবেন তাকে ১০০ দিনার দিবেন। তো আমি গিয়ে শুধু জিনিসটা তাকে দিয়ে দিলাম। সে বলল, “টাকাটা রাখ”, কিন্তু আমি নিলাম না। এরপর আমি শামের উদ্দেশ্যে রওনা হলাম, …

লাল নেকলেস… Read More »

হাম্বলিদের মুতামাদ/নির্ভরযোগ্য মাস’আলা যেগুলোকে কেউ কেউ বিদআত মনে করেন- ১

শাইখ ড. ফারিস বিন ফালিহ আল-খাযরাজি হাম্বলিদের মতে, সালাতের পরে উচ্চস্বরে যিকর মুস্তাহাব। সালাতের পরে যিকর আস্তে করা হবে এবং জোরে করা হলে সেটা বিদআত হবে- এটা হাম্বলি মাযহাবের মত হিসেবে পরিচিত। তবে মাযহাবের নির্ভরযোগ্য মত হচ্ছে, সালাতের পরে ইমাম এবং অনুসারি উভয়রের দ্বারাই জোরে যিকর করা মুস্তাহাব, যাতে মসজিদের ভেতর-বাহির উভয় স্থান থেকেই শোনা …

হাম্বলিদের মুতামাদ/নির্ভরযোগ্য মাস’আলা যেগুলোকে কেউ কেউ বিদআত মনে করেন- ১ Read More »

হাম্বলিদের ইমামগণ সংক্রান্ত কিছু পরিভাষা

হাম্বলি কিতাবাদিতে মাযহাবের বিভিন্ন আলেমদের ইঙ্গিত করতে বিভিন্ন পরিভাষা ব্যবহার করা হয়। তাই কিছু বেসিক পরিভাষা জেনে রাখা জরুরি, এমন কয়েকটি হলঃ আল-কাদ্বি/কাযিঃ মধ্যবর্তী যুগে (মুতাওয়াসসিতিন) অষ্টম শতক পর্যন্ত আল-কাযি বলতে কাযি আবু ইয়ালাকে বুঝানো হয়। তাকে “শাইখুল মাযহাব“ও বলা হয়। আর পরবর্তী যুগে (মুতাআখখিরিন), যেমন আল-ইকনা বা আল-মুনতাহার লেখকদের নিকটে আল-কাযি হচ্ছেন ইমাম আলাউদ্দিন আলি বিন সুলাইমান …

হাম্বলিদের ইমামগণ সংক্রান্ত কিছু পরিভাষা Read More »

তারাবিহ এবং কাযা সংক্রান্ত কিছু বিষয়

তারাবিহ সংক্রান্ত কিছু পয়েন্ট [শাইখ করিম হিলমীর পোষ্ট অবলম্বনে]ঃ ১। তারাবিহর সালাত সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। (সুন্নাত সালাতের মধ্যে সূর্যগ্রহণের সালাত এবং বৃষ্টির সালাতের পর তারাবিহ সবচে গুরুত্বপূর্ণ- বিদায়াতুল আবিদ) ২। সবচেয়ে উত্তম হচ্ছে মসজিদে জামাআতে তারাবিহ পড়া। রমযানের রাতে মসজিদে জনসমাগম দ্বীনের অন্যতম শিয়ার। অধিক জমসমাগমপূর্ণ মসজিদ উত্তম। ৩। কেউ যদি জামাআতে পড়তে না পারে, তাহলে সে …

তারাবিহ এবং কাযা সংক্রান্ত কিছু বিষয় Read More »